Connect with us

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

ভালো উইকেট না পাওয়ায় পাওয়ার হিটার তৈরি হচ্ছে না: বাশার


প্রকাশ

:

ছবি : সংগৃহীত

|| ডেস্ক রিপোর্ট ||

রঙিন পোশাকের ক্রিকেটে লম্বা সময় ধরেই একজন ফিনিশারের অভাবে ভুগছিল বাংলাদেশ। শেষের দিকে পাওয়ার হিটিং করে দলের রান বাড়ানোর সঙ্গে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয়ার মতো ক্রিকেটার না থাকার আক্ষেপে পুড়তে হয়েছে এবং হচ্ছে টাইগারদের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে হারের পর বাংলাদেশে পাওয়ার হিটার না থাকার কথা বলে আক্ষেপ প্রকাশ করেছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। 

ম্যাচের একদিন পর অধিনায়কের কথার সুরের সঙ্গে সুর মেলালেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমনও। ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো উইকেট না পাওয়ায় বাংলাদেশে পাওয়ার হিটার তৈরি হচ্ছে না বলে মনে করেন তিনি। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) কিংবা অন্যান্য টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে বারবার একই উইকেটে খেলার কারণে ভালো উইকেট পাওয়া যায় না বলে জানান তিনি।

এ প্রসঙ্গে বাশার বলেন, ‘আমাদের যেটা দরকার, বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য, ভবিষ্যতের জন্য, আমাদের ঘরোয়া যে টুর্নামেন্ট গুলো খেলি, সেখানে ব্যাটিং উইকেট তৈরি করা। আমরা খুব বেশি যখন ম্যাচ খেলি, বিপিএল বা টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট খেলি, তখন একই উইকেটে বারবার খেলার জন্য অনেক সময় আমরা ভালো উইকেট পাই না। যার জন্য আমাদের পাওয়ার হিটার তৈরি হচ্ছে না।’

উপমহাদেশের কন্ডিশন এমনিতেই খানিকটা স্পিন বান্ধব। যেখানে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডকে হারাতে স্পিন নির্ভর উইকেটের সুবিধা নিয়ে থাকে উপমহাদেশের দলগুলো। যদিও সেটা কেবলই টেস্ট ক্রিকেটে। তবে সম্প্রতি রঙিন পোশাকেও একই পন্থা অবলম্বন করতে শুরু করেছে বাংলাদেশ। যে কারণে ম্যাচ খেলতে গিয়ে স্পিন বান্ধব উইকেটের উপর নির্ভর করতে হচ্ছে।

এদিকে বাংলাদেশের যে কোনো টুর্নামেন্টে বরাবরই স্পিনাররা আধিপত্য বিস্তার করে থাকে। বিপিএল কিংবা ডিপিএলের টি-টোয়েন্টি সংস্করণে সেভাবে কখনও ১৮০-২০০ রান করতে দেখা যায় না। কারণ উইকেটে ব্যাটসম্যানদের জন্য তেমন কোনো সুবিধা থাকে না। যা পাওয়ার হিটার তৈরিতে ব্যাপকভাবে বাধাগ্রস্থ করছে। টি-টোয়েন্টিতে ভালো করতে এবং পাওয়ার হিটার তৈরিতে ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো মানের উইকেট তৈরির বিকল্প দেখছেন না বাশার। 

তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আপনি আপনার সুবিধা নিতে চাইবেন। এটা খুব স্বাভাবিক। আপনি জিততে চাইবেন। কিন্তু আমাদের যদি টি-টোয়েন্টি সংস্করণে ভালো করতে হয়, পাওয়ার হিটার তৈরি করতে হয়, আমি মনে করি আমাদের ঘরোয়া ক্রিকেটে উইকেটগুলো অনেক উন্নতি করতে হবে। যেখানে ২০০-১৮০ রানের খেলা হবে ধারাবাহিকভাবে।’

বাশার আরও বলেন, ‘আমরা আসলে এটা খুব বেশি পাই না, যখন ঘরোয়া টুর্নামেন্ট হয়। পাওয়ার প্লে ব্যবহার করা, পাওয়ার হিটার তৈরি করা সেটা খুব বেশি হচ্ছে না। আমার মনে হয়, আমাদের সবচেয়ে বেশি দরকার যেটা পরবর্তীতে আমরা যখন ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট খেলবো , তখন যেন ভালো উইকেটে আমরা খেলতে পারি সবসময়।’

সর্বশেষ

৭ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২১

বাংলাদেশের ব্যাটারদের তাড়াহুড়োর কারণ জানেন না সুজন

৭ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২১

বাংলাদেশকে দুইবার অল আউট করে জিততে চায় পাকিস্তান

৭ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২১

নভেম্বরে আইসিসির সেরা নারী ক্রিকেটার হওয়ার দৌড়ে নাহিদা

৭ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২১

বাংলাদেশ সিরিজ থেকে ছিটকে গেলেন উইলিয়ামসন

৭ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২১

ভারতকে উড়িয়ে বাংলাদেশের যুবাদের সিরিজ জয়

৭ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২১

৩ বছর পর দক্ষিণ আফ্রিকা দলে কোলপাকে যাওয়া অলিভিয়ার

৭ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২১

পেস বোলিং ছেড়ে স্পিনার হওয়াটা সেরা সিদ্ধান্ত ছিল: প্যাটেল

৭ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২১

মাঠের লড়াইয়ে নামার আগে পেইনের পরামর্শ নেবেন কামিন্স

৭ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২১

অ্যাশেজের প্রথম ম্যাচে খেলা হচ্ছে না অ্যান্ডারসনের

৭ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২১

পাকিস্তানের ইনিংস ঘোষণার পর বাংলাদেশের বিপর্যয়

আর্কাইভ

বিজ্ঞাপন