Connect with us

পাকিস্তান - দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ

নির্বাচকদের সমালোচনায় ইনজামাম


প্রকাশ

:


আপডেট

:

ছবি : সংগৃহীত

|| ডেস্ক রিপোর্ট ||

বাংলাদেশের পর এবার ঘরের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট খেলবে পাকিস্তান। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে সিরিজকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে ২০ সদস্যের টেস্ট স্কোয়াড ঘোষণা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। যেখানে সুযোগ দেয়া হয়েছে নতুন ৯ ক্রিকেটারকে।

২০২০-২১ ঘরোয়া মৌসুম ও কায়েদ ই আজম ট্রফিতে দারুণ পারফরম্যান্সের ফলস্বরূপ তরুণ ক্রিকেটারদের দলে জায়গা দিয়েছে পিসিবি। তবে নির্বাচকদের দল নির্বাচনের দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে সমালোচনা করেছেন ইনজামাম উল হক। তিনি মনে করেন, দল নির্বাচনের ক্ষেত্রে নির্বাচকদের দৃষ্টিভঙ্গি আরও সুদূর প্রসারী হওয়া প্রয়োজন।

দল নির্বাচনের ক্ষেত্রে ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফর‌ম্যান্সের উপর জোর দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছিল নির্বাচকরা। তবে সেখানেও নির্বাচকদের খামখেয়ালির পরিচয় মিলেছে। ইনজামাম বিশ্বাস করেন, এই দলটি ভালো কোনো প্রতিপক্ষকে হারানোর যোগ্যতা রাখে না। সেই সঙ্গে পেসারকে তাবিস খানকে দলে নেয়ায় সমালোচনা করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে ইনজামাম বলেন, ‘নির্বাচন দুই বছরের একটি পরিকল্পনা। আপনার দৃষ্টিভঙ্গি আপনার নির্বাচনের সংজ্ঞা দেয়। মোহাম্মদ ওয়াসিমের নেতৃত্বে পিসিবির নির্বাচক কমিটি ঘোষিত দলে একেবারেই কোনও দৃষ্টিভঙ্গি দেখা যায়নি।’

‘কেউ বলতে পারবে না এই দলটি ভালো কোনো দলকে হারাতে পারবে। ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে আপনি দলটি বেছে নিয়েছেন সেটা মানলাম। কিন্তু কেউ কি আমাকে বলতে পারবে? একজন পেসার যার বয়স ৩৬, সে কিভাবে এখানে উন্নতি করবে। এই বয়সের কোনো ব্যাটসম্যানকেও তো দলে প্রথমবারের মতো নির্বাচন করা হয় না; তিনি আরও যোগ করেন।’

বর্তমান সময়ে সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে হারিস রউফ ভালো করলেও টেস্টের জন্য যোগ্য নয় বলে মনে করেন ইনজামাম। সেটি নিয়েও সমালোচনা করেছেন সাবেক এই ক্রিকেটার। এ প্রসঙ্গে তাঁর ভাষ্য, ‘হারিস রউফ আরেকটি উদাহরণ। সে তিনটি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছে এবং কেবল সাতটি উইকেট নিয়েছে আর তুমি তাকে টেস্ট স্কোয়াডে রেখেছো। তাকে টেস্ট ক্যাপ দেয়ার চেয়ে চার দিনের ম্যাচে রাখা উচিত ছিল।’

যদিও সৌদ শাকিল ও সাজিদ খানকে দলে নেয়ায় প্রশংসা করেছেন ইনজামাম। এ প্রসঙ্গে তাঁর ভাষ্য, ‘সৌদ শাকিল ও সাজিদ খান ভালো নির্বাচন। তারা ভালো পারফর্মার এবং তাদের বয়সও রয়েছে। শান মাসুদের মতো আবিদ আলীকেও দলের বাইরে রাখা উচিত ছিল। সে কয়েকটি সিরিজে মাত্র একটি হাফ সেঞ্চুরি করেছে। দয়া করে তোমরা নির্বাচনের মান বাড়াও।’

দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে পাকিস্তানের টেস্ট দল: বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান (সহ অধিনায়ক, উইকেটরক্ষক), আবিদ আলী, আব্দুল্লাহ শফিক, ইমরান বাট, আজহার আলী, ফাওয়াদ আলম, কামরান গোলাম, সালমান আলী আঘা, সৌদ শাকিল, ফাহিম আশরাফ, মোহাম্মদ নওয়াজ, সরফরাজ আহমেদ, নওমান আলী, সাজিদ খান , ইয়াসির শাহ, হারিস রউফ, হাসান আলী, শাহীন শাহ আফ্রিদি এবং তাবিস খান।

সর্বশেষ

৬ মার্চ, শনিবার, ২০২১

পিএসএলে করোনা, মেডিকেল বিভাগ প্রধানের পদত্যাগ

৬ মার্চ, শনিবার, ২০২১

সুযোগ পেলে আবারও 'রিভার্স ফ্লিক' খেলবেন পান্ত

৬ মার্চ, শনিবার, ২০২১

তর্ক সাপেক্ষে ফোকস বিশ্বের সেরা উইকেটকিপার: রুট

৬ মার্চ, শনিবার, ২০২১

কোহলির নেতৃত্বে স্বাধীন পান্ত-অক্ষররা

৬ মার্চ, শনিবার, ২০২১

নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে বড় সুবিধা ১৪ দিন পরেই মুক্তি

৬ মার্চ, শনিবার, ২০২১

২ বছরের মধ্যে আকবরদের জাতীয় দলের বিবেচনায় আনতে চায় বিসিবি

৬ মার্চ, শনিবার, ২০২১

আইপিএলের পর্দা উঠছে ৯ এপ্রিল!

৬ মার্চ, শনিবার, ২০২১

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ভারত

৬ মার্চ, শনিবার, ২০২১

তৃষ্ণার ৬ উইকেটের দিনে সালমাদের বড় জয়

৬ মার্চ, শনিবার, ২০২১

ইংল্যান্ডকে ৩ দিনে হারিয়ে ফাইনালে ভারত

আর্কাইভ

বিজ্ঞাপন