Connect with us

শ্রীলঙ্কা - পাকিস্তান সিরিজ

গলে শাহীন আফ্রিদি-হাসানদের দুর্দান্ত দিন


প্রকাশ

:

ছবি : সংগ্রহীত

|| ডেস্ক রিপোর্ট ||

দিমুথ করুনারত্নকে ফিরিয়ে দিনের শুরুটা করলেন শাহীন শাহ আফ্রিদি। বাঁহাতি এই পেসারের সঙ্গে শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং লাইনআপ ধসিয়ে দিতে যোগ দেন ইয়াসির শাহ-হাসান আলীরা। পাকিস্তানের বোলারদের তোপে দ্রুত অল আউট হওয়ার শঙ্কা জাগলেও দীনেশ চান্দিমাল ও মাহেশ থিকশানার ব্যাটে দলের রান দুইশ পেরোয় লঙ্কানরা। গলে বোলারদের দাপটের দিনে দুই দল মিলে হারিয়েছে ১২ উইকেট। শেষ বিকেলে ব্যাটিংয়ে নেমে ২ উইকেট ২৪ রান তুলে পাকিস্তান। শ্রীলঙ্কার চেয়ে ১৯৮ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় দিন ব্যাটিংয়ে নামবে সফরকারীরা

গল ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। দিনের শুরুতেই করুনারত্নেকে ফেরান শাহীন আফ্রিদি। বাঁহাতি এই পেসারের অফ স্টাম্পের বাইরের বলে ডিফেন্ড করতে গিয়ে বোল্ড হন লঙ্কান অধিনায়ক। বাঁহাতি এই ব্যাটার ফিরেছেন মাত্র ১ রানে। এরপর অবশ্য ওশাদা ফার্নান্দো ও কুশল মেন্ডিস মিলে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে তারা দুজনে মিলে ৪৯ রান যোগ করেন। মেন্ডিসকে ফিরিয়ে তাদের জুটি ভাঙেন ইয়াসির শাহ। ডানহাতি এই লেগ স্পিনারের অফ স্টাম্পের বাইরের লেংথ ডেলিভারিতে কাট করতে গিয়ে উইকেটকিপার মোহাম্মদ রিজওয়ানের গ্লাভসে ক্যাচ দেন মেন্ডিস। তাতে ২১ রানে ফিরে যেতে হয় থিতু হওয়া ডানহাতি এই ব্যাটারকে। পরের ওভারে ফেরেন ফার্নান্দোও।

হাসান আলীর অফ স্টাম্পের বাইরের বলে খেলতে গিয়ে রিজওয়ানের গ্লাভসে ক্যাচ দিয়ে ৩৫ রানে ফেরেন তিনি। থিতু হতে পারেননি অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসও। ইয়াসিরের বলে মিড অন দিয়ে খেলতে গিয়ে ব্যাটে-বলে ঠিকঠাক টাইমিং না হওয়ায় নাসিম শাহর হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন ডানহাতি এই ব্যাটার। ধনাঞ্জয়া ডি সিলভাও ফিরেছেন ব্যর্থতার পাল্লা ভারী করে।

শাহীন আফ্রিদির অফ স্টাম্পের বাইরের বলে ড্রাইভ করতে গিয়ে বোল্ড হন ধনাঞ্জয়া। এরপর নিরোশান ডিকওয়েলা ১ এবং রমেশ মেন্ডিস ফিরেছেন ১১ রানে। শেষ দিকে থিকশানাকে সঙ্গে নিয়ে শ্রীলঙ্কার রান বাড়ান চান্দিমাল। থিকশানার সঙ্গে ৪৪ রানের জুটি গড়ার পথে ৮৩ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন ডানহাতি এই ব্যাটার। হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেয়ার পর অবশ্য খুব বেশি সময় টিকতে পারেননি চান্দিমাল।

হাসানের বলে কভার দিয়ে খেলতে গিয়ে ইয়াসিরকে ক্যাচ দেন ৭৬ রান করা এই ব্যাটার। শেষ দিকে থিকশানার ৩৮ রানে দলের রান দুইশ পেরোয় শ্রীলঙ্কা। থিকশানা ফিরলে ২২২ রানে অল আউট হয় স্বাগতিকরা। পাকিস্তানের হয়ে চার উইকেট নিয়েছেন শাহীন আফ্রিদি। এ ছাড়া হাসান ও ইয়াসির দুটি করে উইকেট নিয়েছেন।

প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার ২২২ রানের জবাব দিতে নেমে শুরুতে উইকেট হারায় পাকিস্তানও। কাসুন রাজিথার লেংথ ডেলিভারিতে বলের লাইন মিস করলে তা ইমাম উল হকের থাই প্যাডে আঘাত করে। জোরালো আবেদন করতেই আউট দেন আম্পায়ার। তবে তৎক্ষণাৎ রিভিউ নেন ইমাম। যদিও শেষ পর্যন্ত রক্ষা হয়নি তার।

মাত্র ২ রানে ফিরে যেতে হয় দারুণ ছন্দে থাকা ইমামকে। শেষ বিকেলে আব্দুল্লাহ শফিককে ফেরান প্রবাথ জয়াসুরিয়া। বাঁহাতি এই স্পিনারের আর্ম ডেলিভারিতে লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে পড়েন তিনি। ১১ রান করা শফিক ফিরলে পাকিস্তানকে আর কোনো উইকেট হারাতে দেননি বাবর আজম ও রিজওয়ান।

সর্বশেষ

৭ ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার, ২০২৩

জয়রথ থামছেই না কুমিল্লার

৭ ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার, ২০২৩

হাথুরুসিংহের সহকারী নয়, কোচিং প্যানেলে থাকবেন দেশিরা

৭ ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার, ২০২৩

সাকিবদের আইপিএলের পুরো মৌসুম খেলার অনুমতি দেবে না বিসিবি

৭ ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার, ২০২৩

নারী আইপিএলের নিলামে বাংলাদেশের ৯ ক্রিকেটার

৭ ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার, ২০২৩

নির্বাচক ও কোচের দায়িত্ব নিতে ক্রিকেট ছাড়লেন আকমল

৭ ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার, ২০২৩

সহজ ম্যাচ কঠিন করে হারল ঢাকা

৭ ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার, ২০২৩

জানুয়ারীর সেরা হওয়ার দৌঁড়ে গিল-কনওয়ে-সিরাজ

৭ ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার, ২০২৩

জানুয়ারীর সেরা হওয়ার দৌঁড়ে গিল-কনওয়ে-সিরাজ

৭ ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার, ২০২৩

হাথুরুসিংহে ভালো মানুষ, কারো পেছনে কথা বলে না: সুজন

৭ ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার, ২০২৩

নাগপুর টেস্টেও খেলা হচ্ছে না গ্রিনের

আর্কাইভ

বিজ্ঞাপন