Connect with us

অ্যাশেজ সিরিজ

বেয়ারস্টোর সেঞ্চুরিতেও পিছিয়ে ইংল্যান্ড


প্রকাশ

:


আপডেট

:

ছবি : সংগৃহীত

|| ডেস্ক রিপোর্ট ||

পুরো সিরিজ জুড়ে ব্যর্থ হওয়া ইংল্যান্ডের টপ অর্ডার চিত্র বদলাতে পারেনি সিডনি টেস্টেও। মাত্র ৩৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে আরও একবার যখন লজ্জায় ডুবে যাওয়ার মতো অবস্থা তখন দেয়াল হয়ে দাঁড়িয়ে ইংল্যান্ডকে উদ্বার করেন বেন স্টোকস এবং জনি বেয়ারস্টো। স্টোকস হাফ সেঞ্চুরির পর ফিরে গেলেও সেঞ্চুরি করে বেয়ারস্টো টিকে রয়েছেন ১০৩ রানে। তবুও তৃতীয় দিন শেষে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে ১৫৮ রানে পিছিয়ে ইংল্যান্ড।

দ্বিতীয় দিনের বিনা উইকেটে ১৩ রান নিয়ে এদিন ব্যাটিংয়ে নামেন সফরকারীদের দুই ওপেনার হাসিব হামিদ এবং জ্যাক ক্রলি। ভেন্যু বদলালেও বদলায়নি ইংলিশ ওপেনারদের ব্যর্থতার চিত্র। ব্যর্থতার পাল্লা ভারী করে মাত্র ৬ রানে আউট হয়েছেন হাসিব। মিচেল স্টার্কের বলে ড্রাইভ করতে গেলে ব্যাট এবং পায়ের মাঝে ফাঁকা থাকায় বোল্ড হয়েছেন ডানহাতি এই ওপেনার। 

থিতু হয়েও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি ক্রলি। ডানহাতি এই ব্যাটারকে বোল্ড আউট করেছেন স্কট বোল্যান্ড। ক্যামেরন গ্রিনের বলে উসমান খাওয়াজার হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হয়েছেন ৩ রান করা ডেভিড মালান। গত বছর টেস্টে দুর্দান্ত সময় পার করা জো রুটের এবারের বছরটা শুরু হলো ব্যর্থতা দিয়ে। 

বোল্যান্ডের বলে স্টিভেন স্মিথকে ক্যাচ দিয়ে শূন্য রানে ফিরেছেন ইংল্যান্ডের টেস্ট অধিনায়ক। ৩৬ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর দারুণভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলেন স্টোকস ও বেয়ারস্টোর। লাঞ্চের আগে ও পরে মিলে টানা ৭০ বল খেললেও কোনো রান তুলতে পারেনি ইংলিশ ব্যাটাররা। 

যদিও সময় গড়ার সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের খোলস ছেড়ে বেরিয়ে এসেছেন স্টোকস ও বেয়ারস্টো। আক্রমণাত্বক ব্যাটিং করে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন স্টোকস। পঞ্চাশ ছোঁয়ার পর ইনিংস বড় করতে পারেননি অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডার। নাথান লায়নের বলে লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে পড়ে ৬৬ রানে আউট হয়েছেন স্টোকস। তাতে ভাঙে তাদের দুজনের ১২৮ রানের অনবদ্য জুটি। 

এর আগে অবশ্য একবার জীবন পেয়েছেন তিনি। গ্রিনের বল স্টোকসের অফ স্টাম্পে আঘাত হানলেও বেল না পড়ায় আউট হননি তিনি। অ্যাশেজে আরও একবার ব্যর্থ জস বাটলার। প্যাট কামিন্সের বলে ড্রাইভ করতে গিয়ে সোজা খাওয়াজার হাতে ক্যাচ দিয়ে শূন্য রানে ফেরেন এই ইংলিশ উইকেটকিপার ব্যাটার।

দ্রুতগতিতে রান তুললেও হাফ সেঞ্চুরির আগে কামিন্সের বলে সাজঘরে ফিরেছেন মার্ক উড। দুটি চার এবং তিনটি ছক্কায় ৪১ বলে ৩৯ রান করে ফিরলে ভাঙে বেয়ারস্টোর সঙ্গে ৭২ রানের জুটি। দিনের শেষ ওভারে কামিন্সের বলে চার মেরে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন বেয়ারস্টো। ২০১৮ সালের নভেম্বরের পর প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি পেলেন তিনি। তাতে তৃতীয় দিন শেষে ইংলিশদের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ২৫৮ রান। অজিদের হয়ে দুটি করে উইকেট নিয়েছেন বোল্যান্ড ও কামিন্স।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (তৃতীয় দিন শেষ)-

অস্ট্রেলিয়া (প্রথম ইনিংস)- ৪১৬/৮ (১৩৪ ওভার) (খাওয়াজা ১৩৭, স্মিথ ৬৭; ব্রড ৫/১০১)

ইংল্যান্ড (প্রথম ইনিংস)- ২৫৮/৭ (৭০ ওভার) (বেয়ারস্টো ১০৩*, স্টোকস ৬৬, উড ৩৯; বোল্যান্ড ২/২৫, কামিন্স ২/৬৮)

সর্বশেষ

২৬ জানুয়ারী, বুধবার, ২০২২

অশ্বিন-লায়নরা ১ হাজার উইকেট নেবেন, ভবিষ্যদ্বাণী ওয়ার্নের

২৬ জানুয়ারী, বুধবার, ২০২২

স্যামির বদলে জালমির প্রধান কোচের দায়িত্বে ফস্টার

২৬ জানুয়ারী, বুধবার, ২০২২

কোলপাক ছেড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা দলে হার্মার

২৬ জানুয়ারী, বুধবার, ২০২২

সেরা দশে ডাসেন, ডি কক-বাভুমার উন্নতি

২৬ জানুয়ারী, বুধবার, ২০২২

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ফিরছেন কুশল, গুনাথিলাকা

২৬ জানুয়ারী, বুধবার, ২০২২

বিপিএল থেকে ছিটকে গেলেন আল আমিন

২৬ জানুয়ারী, বুধবার, ২০২২

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে পেরেরার বিদায়

২৬ জানুয়ারী, বুধবার, ২০২২

জয়ের পরিপক্বতায় মুগ্ধ রোডস

২৬ জানুয়ারী, বুধবার, ২০২২

বল টেম্পারিং করে শাস্তি পেল নেদারল্যান্ডস

২৬ জানুয়ারী, বুধবার, ২০২২

ইমরুলের অধিনায়কত্ব মনে ধরেছে রোডসের

আর্কাইভ

বিজ্ঞাপন