Connect with us

আয়ারল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার সহজ জয়


প্রকাশ

:

ছবি : সংগৃহীত

|| ডেস্ক রিপোর্ট ||

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে প্রথমবার এক ওপরের মুখোমুখি হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা এবং আয়ারল্যান্ড। প্রথম দেখায় আয়ারল্যান্ডকে ৩৩ রানে হারিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে আছে প্রোটিয়ারা। ডাবলিনে রোববার ব্যাটসম্যানদের প্রচেষ্টায় ৭ উইকেটে ১৬৫ রানের পুঁজি পায় সফরকারীরা।

জবাবে দুই স্পিনার তাবরিজ শামসি ও জর্জ লিন্ডার ছোবলে স্বাগতিকরা করতে পারে মাত্রে ১৩২ রান। আট ওভার বোলিং করে ৫৩ রান দিয়ে এই দুই স্পিনারের শিকার ৬ উইকেট। চায়নাম্যান শামসি ২৭ রানে ৪ উইকেট নিয়ে হন ম্যাচসেরা। লিন্ডার প্রাপ্তি ২৬ রানে দুই উইকেট।

টস জিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে শুরুতে চেপে ধরে আয়ারল্যান্ড। পাওয়ার প্লেতে তারা তুলে নেয় প্রোটিয়া তিন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের উইকেট। বিদ্ধংসী হবার আগে কুইন্টন ডি কককে ফিরিয়ে দেন মার্ক অ্যাডায়ার।

মিড অফে ক্যাচ দেবার আগে এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান করেন ৩ চার ও এক ছয়ের সাহায্যে ৯ বলে ২০ রান। আইরিশ এই পেসার পরের ওভারেই নেন জানেমান মালানের উইকেট। প্রতিপক্ষ অধিনায়ক টেম্বা বাভুমাকে টিকতে দেননি সিমি সিং।

৪৪ রানে ৩ উইকেট হারানো দলের হাল ধরার চেষ্টায় ব্যর্থ হন রাসি ফন ডার ডাসেনও। ১৮ বলে তিনি করেছিলেন এক ছক্কা ও ২ চারে ২৫। ব্যাট হাতে কিছুক্ষণ লড়াই করেন এইডেন মার্করাম। বোল্ড আউট হবার আগে তিনি দুইটি করে ছয়-চারে করেন ৩৯ রান।

অ্যাডায়ারকে শেষ ওভারে টানা ৪টি চার মারেন কাগিসো রাবাদা। তার ৯ বলে ১৯ রান ও ডেভিড মিলারের ২১ বলে ২৮ রানের সুবাদে দেড়শ পার করে দক্ষিণ আফ্রিকা। আয়ারল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন অ্যাডায়ার।

দুর্দান্ত বোলিং করেন সিমি। ১৯ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন এই অফ স্পিনার। রান তাড়ায় আয়ারল্যান্ড নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায়। দুই অঙ্কের ঘরে যেতে পারেন দলটির কেবল চার জন। যেখানে সর্বোচ্চ রান হ্যারি টেক্টরের ৩৬।

ইনিংসের প্রথম বলে লিন্ডাকে ছক্কায় উড়িয়ে ইতিবাচক শুরু করেছিলেন পল স্টার্লিং। কিন্তু দ্বিতীয় বলেই বোল্ড অভিজ্ঞ এই ওপেনার। পরের ওভারের প্রথম বলে রাবাদার ফিরতি ক্যাচে গোল্ডেন ডাকের তেতো স্বাদ পান কেভিন ও’ব্রায়েন।

লুঙ্গি এনগিডিও নিজের প্রথম বলে ধরেন শিকার, ফিরিয়ে দেন জর্জ ডকরেলকে। এই পেসারের পরের ওভারে কট বিহাইন্ড অ্যান্ডি বালবার্নি। ১৬ বলে ৪ চারে আইরিশ অধিনায়ক করেন ২২। এরপর আয়ারল্যান্ডের ব্যাটিংয়ে ধস নামান শামসি।

সিমি ও শেন গেটকেটকে বোল্ড করার পর তিনি ফেরান অ্যাডায়ারকে। এসবের মাঝে কিছুটা লড়াই করেন টেক্টর। ৩৪ বলে তার ৩ চারে ৩৬ রানের ইনিংসও থামে শামসির বলে স্টাম্পড হয়ে। শেষ দিকে ম্যাককার্থির অপরাজিত ৩০ রানের ইনিংসও ম্যাচ বাচাতে পারেনি।

সর্বশেষ

১৯ সেপ্টেম্বর, রবিবার, ২০২১

মিরপুরে ফিরেই তামিমের আগ্রাসী ব্যাটিং অনুশীলন

১৯ সেপ্টেম্বর, রবিবার, ২০২১

দ্বিতীয় ভাগে দারুণ খেলবে কলকাতা, আশাবাদী সাকিব

১৯ সেপ্টেম্বর, রবিবার, ২০২১

শুক্রবার সবকিছু বদলে গেছে, নিউজিল্যান্ডের প্রধান নির্বাহী

১৯ সেপ্টেম্বর, রবিবার, ২০২১

প্রীতি ম্যাচ আয়োজনে পিসিবির রাডারে ১০০ বিদেশি ক্রিকেটার

১৯ সেপ্টেম্বর, রবিবার, ২০২১

কালই পাকিস্তান যাচ্ছি, আমার সঙ্গে কে যাবে: গেইল

১৮ সেপ্টেম্বর, শনিবার, ২০২১

চট্টগ্রামে বৃষ্টি বাধায় খেলা হলো ৫.৪ ওভার

১৮ সেপ্টেম্বর, শনিবার, ২০২১

সুপার ক্লাসিকো দিয়ে মাঠে ফিরছে আইপিএল

১৮ সেপ্টেম্বর, শনিবার, ২০২১

বেঙ্গালুরুতে ভিন্ন মাত্রা যোগ করবেন চামিরা-হাসারাঙ্গা

১৮ সেপ্টেম্বর, শনিবার, ২০২১

নিউজিল্যান্ডের কাণ্ডে আইসিসির হস্তক্ষেপ চান ইনজামাম

১৮ সেপ্টেম্বর, শনিবার, ২০২১

অনিশ্চয়তায় অস্ট্রেলিয়ার পাকিস্তান সফর

আর্কাইভ

বিজ্ঞাপন