Connect with us

ক্রিকেটের ইতিহাস

টেস্ট ইতিহাসে অভিষিক্ত পাঁচ 'বুড়ো'


প্রকাশ

:


আপডেট

:

ছবি : ছবিঃ সংগৃহীত

|| ডেস্ক রিপোর্ট ||

সাধারণত, ক্রিকেটের খেলায়, খেলোয়াড়রা ৩৫ বা তার বেশি বয়সে পৌঁছালে তাদের সরে যান ২২ গজ থেকে। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে ৩০ বছর বয়সের পরে অনেক খেলোয়াড় তাদের শারীরিক গতিবিধিতে কিছুটা পতন লক্ষ্য করেন। যেহেতু এটি খেলায় প্রভাব ফেলে, তাই ক্রিকেটাররা ৩০ পার হতে না হতেই বিদায়ের প্রস্তুতি নিতে থাকেন। এছাড়াও, এই রকম বয়সে ফিটনেসও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হয়ে দাঁড়ায়।

তবে এমন কিছু ক্রিকেটার আছেন যাদের অভিষেকটাই হয়েছিল 'বুড়ো' বয়সে। এই ক্রিকেটাররা ৪০ বছর পেরিয়ে যাওয়ার পরে পা রেখেছিলেন ২২ গজে। আর যা কিনা আধুনিক সময়ের ক্রিকেটে একেবারেই অসম্ভব।

চলুন পাঁচজন খেলোয়াড়ের দিকে নজর দিয়ে আসি যারা তাদের অভিষেকের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বয়স্ক খেলোয়াড় ছিলেন:

৫- নেলসন বেন্টাকোর্ট

ওয়েস্ট ইন্ডিজের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান নেলসন বেন্টাকোর্ট ১৯৩০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪২ বছর ২৪২ দিন বয়সে অভিষিক্ত হয়েছিলেন। বেন্টাকোর্টর অভিষেকের ম্যাচটি তার টেস্ট ক্যারিয়ারের একমাত্র ম্যাচ ছিল। মজার বিষয় হল, অভিষেকের খেলায় তিনি ক্যারিবীয় দলের অধিনায়কও ছিলেন। তিনি জীবনের একমাত্র টেস্টটিতে মাত্র ৫২ রান করেছিলেন। যার প্রথম ইনিংসে সংগ্রহ ছিল ৩৯ এবং দ্বিতীয়টিতে ১৩।

৪- হারবার্ট আয়রনমঙ্গার

অস্ট্রেলিয়ার একজন বাঁহাতি স্পিনার টেস্ট ক্রিকেটে অভিষিক্ত হওয়া চতুর্থ ক্রিকেটার হারবার্ট আয়রনমঙ্গার। কুইন্সল্যান্ডের এই ক্রিকেটার ১৯২৮ সালে ব্রিসবেনে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪৬ বছর ২৩৭ দিন বয়সে প্রথম ম্যাচ খেলেছিলেন। সেই ম্যাচে, আয়রনমঙ্গার তার ম্যাজিকাল স্পিন বোলিং প্রদর্শন করেছিলেন এবং উভয় ইনিংসে দুটি করে উইকেট শিকার করেছিলেন।

সব মিলিয়ে পাইন মাউন্টেন-বংশোদ্ভূত এই অজি ক্রিকেটার জাতীয় দলের হয়ে ১৪ টি টেস্ট খেলেছেন এবং ৭৪৮টি উইকেট শিকার করেছেন। দুইবার এই বাঁহাতি এক ম্যাচে ১০টি উইকেট পেয়েছিলেন। সেই সঙ্গে চারবার করে তিনি পাঁচ উইকেট এবং চার উইকেট শিকার করেছিলেন।

৩- ডোনাল্ড ডিয়ারনেস ব্ল্যাকি

তালিকার আরেকজন অজি হলেন ডোনাল্ড ডিয়ারনেস ব্ল্যাকি। ভিক্টোরিয়ার এই অফ স্পিনার তার দেশের প্রতিনিধিত্বকারী সবচেয়ে বয়স্ক ক্রিকেটার ছিলেন। ১৯৪৮ সালের ডিসেম্বরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪৬ বছর এবং ২৫৬ দিন বয়সে অভিষেক হয়েছিল তাঁর।

তিনি তাঁর প্রথম ম্যাচেই চার উইকেট শিকার করেছে। সব মিলিয়ে তিনি তিনটি টেস্টের ক্ষুদ্র ক্যারিয়ারে ১৪টি উইকেট শিকার করেছেন।

২- মিরান বকস

তালিকার আরেক অফ স্পিনার হলেন পাকিস্তানের মিরান বকশ। টেস্ট ইতিহাসে অভিষিক্ত দ্বিতীয় 'বুড়ো' তিনি। ডানহাতি এই বোলার ১৯৫৫ সালে লাহোরে ভারতের বিপক্ষে ৪৭ বছর ২৮৮ দিন বয়সে তার প্রথম টেস্টটি খেলেন।

অভিষেক ম্যাচে দুটি উইকেট শিকার করেছিলেন এই রাওয়ালপিন্ডি-বংশোদ্ভূত। দুটি মাত্র টেস্ট খেলেই তিনি এপিটাফ টানেন তাঁর ক্যারিয়ারের।

১- জেমস সাউদার্টন

ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার জেমস সাউদার্টন নিজের নামটি লিখিয়েছিলেন টেস্ট ইতিহাসের সবচেয়ে প্রবীণ ক্রিকেটার হিসেবে। ৪৯ বছর এবং ১১৯ দিন টেস্ট ক্রিকেটে অভিষিক্ত হয়েছিলেন তিনি। ১৮৭৭ সালে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এমসিজি) অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে টেস্টে অভিষেক ঘটে তাঁর। সেই ম্যাচ ইংল্যান্ড হারলেও তিন উইকেট তুলে নিয়েছিলেন সাউদার্টন।

সব মিলিয়ে সাসেক্সের এই ক্রিকেটার দুটি টেস্ট খেলে সাতটি উইকেট শিকার করেছেন। প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে, তিনি ২৮৬ ম্যাচে ১৬৮২ উইকেট নিয়েছিলেন।

সর্বশেষ

১৩ মে, বৃহস্পতিবার, ২০২১

অধিনায়ক হিসেবে স্মিথকেই পছন্দ পেইনের

১৩ মে, বৃহস্পতিবার, ২০২১

টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ভারত, ৫ পয়েন্ট খোয়ালো বাংলাদেশ

১৩ মে, বৃহস্পতিবার, ২০২১

‘সাদা বলে মুস্তাফিজ বাংলাদেশের সেরা বোলার’

১৩ মে, বৃহস্পতিবার, ২০২১

সমালোচকদের গোনায় ধরছেন না মিসবাহ

১৩ মে, বৃহস্পতিবার, ২০২১

ভারত-বাংলাদেশ সিরিজ ও অ্যাশেজের মূল্যায়ন একই কেন, প্রশ্ন ব্রডের

১৩ মে, বৃহস্পতিবার, ২০২১

লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ শুরু ৩০ জুলাই

১২ মে, বুধবার, ২০২১

ইংল্যান্ডের নাগরিক হয়ে আইপিএলে খেলবেন আমির!

১২ মে, বুধবার, ২০২১

ক্রিকেটার তৈরিতে অস্ট্রেলিয়ানদের ছোঁয়া পেয়েছে দ্রাবিড়

১২ মে, বুধবার, ২০২১

ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাঙ্কিংয়ে নুমান-আফ্রিদি-হাসান

১২ মে, বুধবার, ২০২১

আমি কি এতটাই খারাপ, চেন্নাইয়ে সুযোগ না পাওয়া প্রসঙ্গে কুলদীপ

আর্কাইভ

বিজ্ঞাপন