Connect with us

সিপিএল ২০১৮

রিয়াদের ব্যর্থতার দিনে সেন্ট কিটসের বড় পরাজয়


প্রকাশ

:


আপডেট

:

ছবি : জ্যামাইকা তালাওয়াস দল (টুইটার)

এবারের সিপিএলে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে নিজের প্রথম ম্যাচে ১৬ রান করেছিলেন টাইগার অলরাউন্ডার মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। খুব বেশি আহামরি পারফর্মেন্স না করলেও সেই ম্যাচে তাঁর দল সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস জিতেছিল ৪২ রানের বড় ব্যবধানে।

কিন্তু জ্যামাইকা তালাওয়াসের বিপক্ষে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে ভাগ্য সহায় হয়নি রিয়াদদের। এই ম্যাচে প্যাট্রিয়টসরা হেরেছে ৪৭ রানে। আর ব্যাট হাতে এবার মাহমুদুল্লাহ সংগ্রহ করেছিলেন ১৫ বলে ২২ রান। যেখানে ছিল ১টি ছয় এবং ২টি চার। 

এদিন জ্যামাইকার ঘরের মাঠ স্যাবাইনা পার্কে টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন প্যাট্রিয়টস অধিনায়ক ক্রিস গেইল।  এরপর ব্যাটিং করতে নেমে কিউই তারকা ব্যাটসম্যান রস টেইলরের ঝড়ো হাফসেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৭৮ রান সংগ্রহ করে আন্দ্রে রাসেলের জ্যামাইকা। 

টেইলর মাত্র ৩৫ বলে অপরাজিত ৫১ রানের ঝলমলে একটি ইনিংস খেলেন (৪টি ছয় এবং ২টি চার)। দুই ওপেনার কেনার লুইস এবং গ্লেন ফিলিপসও অবশ্য কম যাননি। ২৪ বলে ৪টি ছয় এবং ৪টি চারের সাহায্যে ৪৯ রানের একটি ক্যামিও ইনিংস এসেছে লুইস ব্যাট থেকে। অপরদিকে ফিলিপস ছিলেন কিছুটা শান্ত। ৩৮ বলে ৪১ রান করেছেন তিনি (৩টি ছয় এবং ১টি চার)। এছাড়াও রোভম্যান পাওয়েল ১৮ এবং আন্দ্রে রাসেল ১০ রান করেন। 

জ্যামাইকার ব্যাটসম্যানদের তান্ডবের সামনে নেপালি স্পিনার সন্দ্বীপ লামিচানে ছাড়া বল হাতে ঔজ্জ্বল্যতা দেখাতে পারেননি প্যাট্রিয়সটের আর কোনও বোলারই। ৪ ওভার বোলিং করে ২১ রানে ২ উইকেট শিকার করেন লামিচানে। আর কার্লোস ব্র্যাথওয়েট ৪৩ রানে ১টি এবং বেন কাটিং ২৬ রানে একটি উইকেট নিয়েছেন। তবে এদিন এক ওভারও বল করতে দেখা যায়নি মাহমুদুল্লাহকে। 

সেন্ট কিটসের সামনে ১৭৯ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয়ার পর জয় পেতে অবশ্য খুব বেশি বেগ পেতে হয়নি জ্যামাইকা তালাওয়াসকে। আর এর সকল কৃতিত্বই ছিল দলের বোলারদের। বিশেষ করে তাদের তিন বোলার ক্রিসমার সান্টোকি, অ্যাডাম জাম্পা এবং ইমাদ ওয়াসিমই ছিলেন জয়ের ভিত্তি প্রস্ত স্থাপক। 

এই তিনজনই তুলে নিয়েছেন রিয়াদদের ৬টি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট। আর ১টি করে উইকেট নিয়েছেন ওশানে থমাস, স্টিভেন জ্যাকবস এবং অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। জ্যামাইকার বোলারদের তোপে যদিও অলআউট হয়নি সেন্ট কিটস। তবে তাদের ইনিংস থেমেছে মোটে ৯ উইকেটে ১৩১ রানে। ফলে ৪৭ রানে পরাজিত হয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে তাদের। 

প্যাট্রিয়টসদের পক্ষে ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ২৪ রান করতে সক্ষম হয়েছিলেন অধিনায়ক ক্রিস গেইল। এরপরের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২২ রানই ছিল মাহমুদুল্লাহর। আর কোনও ব্যাটসম্যানই এই ম্যাচে সুবিধা করে উঠতে পারেননি। শেষের দিকে শেল্ডন কটরেলের ১৮ রানের ইনিংসটি ছাড়া বলার মতো আর কোনও ইনিংসই ছিল না দলটির। 

ব্যাট হাতে ২৪ বলে ৪৯ রানের একটি ক্যামিও ইনিংস খেলার জন্য ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন জ্যামাইকা তালাওয়াসের ওপেনার কেনার লুইস। 

জ্যামাইকা তালাওয়াস একাদশ- 

কেনার লুইস, গ্লেন ফিলিপস (উইকেটরক্ষক), আন্দ্রে ম্যাকার্থি, রস টেইলর, রোভম্যান পাওয়েল, আন্দ্রে রাসেল (অধিনায়ক), ইমাদ ওয়াসিম, স্টিভেন জ্যাকবস, ক্রিসমার সান্টোকি, অ্যাডাম জাম্পা, ওশানে থমাস। 

সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস একাদশ-

ক্রিস গেইল (অধিনায়ক), এভিন লুইস, টম কুপার, ডেভন থমাস (উইকেটরক্ষক), অ্যান্টন ডেভচিচ, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, বেন কাটিং, কার্লোস ব্র্যাথওয়েট, জেরিমিয়া লুইস, শেল্ডন কটরেল, সন্দ্বীপ লামিচানে। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর- 

টস- সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস (বোলিং) 

জ্যামাইকা তালাওয়াস- ১৭৮/৪ (২০ ওভার) (টেইলর ৫১, লুইস ৪৯) ( লামিচানে- ২/২১, কাটিং-১/২৬) 

সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস- ১৩১/৯ (২০ ওভার) (গেইল-২৪, মাহমুদুল্লাহ- ২২) (সান্টোকি- ২/১৩, ইমাদ- ২/২১) 

ফলাফল- জ্যামাইকা তালাওয়াস ৪৭ রানে জয়ী 

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ

১ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২০

ভাইয়ের এক ওভারে ৬ ছক্কা স্মিথের

১ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২০

জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ, মাশরাফির দুঃখ প্রকাশ

১ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২০

'আশরাফুলের রান আউট দুটো দৃষ্টিকটু'

১ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২০

‘ছেলে, তোমার জন্মের আগে থেকে সেঞ্চুরি করি’

১ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২০

শ্রেষ্ঠত্বের দৌড়ে কোহলি'র হাতছোঁয়া দুরত্বে স্মিথ

১ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২০

শিঘ্রই ফিরছেন সাইফউদ্দিন

১ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২০

ম্যাকগ্রাকে কখনো ক্ষমা করবে না ভারতীয়রা

১ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২০

মেজর লিগ ক্রিকেট দল নিচ্ছে নাইট রাইডার্স

১ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২০

মিরপুরে মাশরাফি

১ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার, ২০২০

করোনা আক্রান্ত আরও তিন পাকিস্তানি ক্রিকেটার

বিজ্ঞাপন
আর্কাইভ


বিজ্ঞাপন